আন্তর্জাতিক

ভারতে চার নারীকে গণ ধর্ষণ নিহত ১

0Shares

তারা যাচ্ছিলেন অসুস্থ আত্মীয়কে দেখতে। কিন্তু কে জানত তাদের জন্য অপেক্ষা করছে এমন ভয়াবহ বিপদ। ঘটনাটি ঘটেছে বৃহস্পতিবার ভোরে ভারতের উত্তর প্রদেশের বৃহত্তর নয়রা এলাকায়।

সেখানে গাড়িতে করে ভ্রমণের সময় আগে থেকে ওৎপেতে থাকা অস্ত্রধারী দুর্বৃত্তদের হাতে ডাকাতির কবলে পড়তে হয়েছে। শুধু তাই নয় গাড়িতে থাকা চার নারীকে দুর্বৃত্তরা গণ ধর্ষণ করে বলেও অভিযোগ পাওয়া গেছে। এসময় ধর্ষণে বাধা দিলে একজনকে ঘটনাস্থলেই গুলি করে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা।

জানা যায়, বুধবার রাতে অসুস্থ আত্মীয়কে দেখতে ব্যক্তিগত গাড়িটিতে করে একটি পরিবার জেরওয়ার থেকে বুলান্দশহর এর দিকে যাচ্ছিলেন। চারজন পুরুষ ও চারজন নারী মিলে আট সদস্যে ছিল গাড়িতে। বৃহস্পতিবার ভোরে যাওয়ার পথে গাড়ির চাকা পাংচার হলে যমুনা এক্সপ্রেসওয়েতে গাড়ি থামিয়েছিল তারা। এরপর গাড়ি থামলে সবাই গাড়ি থেকে নামার পর হুট করেই দুর্বৃত্তদের আক্রমণের শিকার হন। দুর্বৃত্তরা তাদের অস্ত্রের মুখে রাস্তার পাশের মাঠে নিয়ে যায়, মালা মাল লুট করে, নারীদের গণ ধর্ষণ করে। এসময় বাধা দিলে এক ব্যক্তিকে গুলি করে মেরে ফেলেন।

সূত্র জানায়, ওই এলাকায় একদল দুর্বৃত্ত নিয়মিত রাস্তায় কাটা পুতে রাখে। যাতে রাস্তা দিয়ে যাওয়ার সময় কাটা বিধে চাকা পাংচার হলে দুর্বৃত্তরা যাত্রীদের মালামাল ডাকাতি করতে পারে।

আক্রান্ত পরিবারের একজন সদস্য বলেন, সাবাউতা গ্রামের কাছাকাছি আসার পর আমরা বুঝতে পারি যে গাড়ির চাকায় কোন সমস্যা হয়েছে। তখন আমরা গাড়ি থামাই ও নিচে নেমে দেখি চাকা পাংচার।

ওই সদস্য আরো বলেন, এরপর হঠাৎ করেই ছয় থেকে সাতজনের সশস্ত্র ব্যক্তি এসে আমাদের ঘিরে ধরে। এরপর তারা অস্ত্রের মুখে তাদের সবাইকে পাশের মাঠের দিকে নিয়ে যায়। এরপর তাদের মোবাইল ফোন, পার্স ও প্রায় ৪৪ হাজার রুপির গহনা ছিনিয়ে নেয়।

গুলিতে নিহত ব্যক্তির নাম শাকিল কুরেশি বলে শনাক্ত করা হয়েছে। পুলিশ বলছে, সাবাউতা গ্রামের কাছে রাত ২ টার দিকে এই ঘটনা ঘটেছে। অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের হয়েছে। অপরাধীদের ধরতে চিরুনি অভিযান চালানো হচ্ছে।

হিন্দুস্তান টাইমস এর এক প্রতিবেদনে গৌতমবৌদ্ধ নগরের এসএসপি লাভ কুমার বলেন, এটি একটি জঘন্য অপরাধ। এক ব্যক্তিকে হত্যা করা হয়েছে। চার নারীকে গণ ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। পুলিশ এই ঘটনার তদন্তে কাজ শুরু করেছে।

তিনি আরো বলেন, নারীদেরকে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্ত ইতোমধ্যেই সম্পন্ন। পুলিশের অন্যদুটি দল অপরাধীদের ধরতে অভিযান পরিচালনা করছে।

এই ঘটনা মনে করিয়ে দেয় গত বছরের জুলাইয় মাসের আরেকটি মর্মান্তিক ঘটনাকে। এই বুলন্দশহরের খুর্জা-ঝাজার সড়কে সেরাতে ভ্রমণ কালে ডাকাতরা এক গাড়িকে একইভাবে আক্রমণ করে। এরপর অস্ত্রের মুখে গাড়িতে থাকা নারী ও তার ১৩ বছর বয়সী মেয়েকে পাশের মাঠে নিয়ে গণ ধর্ষন করেছিল। পুরুষ সদস্য বাধা দেয়ায় তাকে তখন গুলি করে হত্যা করা হয়। টাইমস অব ইন্ডিয়া/ ডেকান ক্রনিকল।

Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Most Popular

To Top